Page Nav

HIDE

Grid Style

GRID_STYLE

Post/Page

Popular Posts

Breaking News:

latest

খেজুরিতে স্বামীর ছোঁড়া অ্যাসিডে ঝলসে গেল গৃহবধূ ও দুই শিশুকন্যা !

পূর্ব মেদিনীপুর.ইন : স্বামীর অত্যাচারে দুই শিশুকন্যাকে নিয়ে বাপের বাড়িতে এসে উঠেছিলেন এক গৃহবধূ। কিন্তু আক্রোশের বসে সেই গুণধর স্বামীই কিনা অ্যাসিডে পুড়িয়ে দিল তাঁর স্ত্রী ও দুই শিশু কন্যার দেহ।



শুক্রবার সন্ধ্যায় নারকীয় ঘটনাটি…



পূর্ব মেদিনীপুর.ইন : স্বামীর অত্যাচারে দুই শিশুকন্যাকে নিয়ে বাপের বাড়িতে এসে উঠেছিলেন এক গৃহবধূ। কিন্তু আক্রোশের বসে সেই গুণধর স্বামীই কিনা অ্যাসিডে পুড়িয়ে দিল তাঁর স্ত্রী ও দুই শিশু কন্যার দেহ।



শুক্রবার সন্ধ্যায় নারকীয় ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরি থানার দক্ষিণতলা এলাকায়। এই মুহূর্তে গুরুতর আহত অবস্থায় গৃহবধূ মান্টি কর মান্না, তাঁর দুই শিশু কন্যা সুস্মিতা (৬) ও সুমিতা (১.৫) তমলুক জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

তবে ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত স্বামী বিদ্যাসাগর মান্না ওরফে দিনেশ। তাঁর বাড়ি খেজুরির হেড়িয়া এলাকায়। অভিযুক্তকে পাকড়াও করতে তল্লাশি শুরু করেছে খেজুরি থানা ও হেড়িয়া ফাঁড়ির পুলিশ।




স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বিয়ের পর থেকেই স্ত্রীর ওপরে লাগাম ছাড়া অত্যাচার চালাত বিদ্যাসাগর। এরপর ধীরে ধীরে দুই মেয়ে জন্ম নিলেও অত্যাচার কিছুতেই কমছিল না। অগত্যা স্বামীর বাড়ি ছেড়ে বেশ কিছুদিন যাবৎ বাপের বাড়িতে ফিরে আসে মান্টি।


কিছুদিনের জন্য কলকাতায় কাজেও যায় সে। তবে বর্তমানে বাপের বাড়িতেই দুই শিশুকন্যাকে নিয়ে বসবাস করছিল সে। দিন কয়েক আগে স্ত্রীকে ফিরিয়ে নিয়ে আসার জন্য আবেদন নিবেদনও করে। তাতে রাজি হয়নি মান্টি। এরপর শুক্রবার সন্ধ্যায় শ্বশুরবাড়িতে এসে দরজায় টোকা দেয় বিদ্যাসাগর। সেই সময় দুই শিশুকন্যাকে কোলে তুলে নিয়ে দরজা খুলতেই মান্টিকে লক্ষ করে অ্যাসিড ছুড়ে মারে তাঁর স্বামী।

চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অ্যাসিডে প্রায় ৭০% ঝলসে গিয়েছে মান্টি। তার বাচ্চারাও গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। 


জেলা খবরের আপডেট পেতে এইখানে ক্লিক করুন - Whatsapp